timewatch
১৯ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, সকাল ৭:০২ মিনিট
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি
  6. খুলনা
  7. খেলাধূলা
  8. গণমাধ্যম
  9. চট্রগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. ঢাকা
  12. তথ্য-প্রযুক্তি
  13. ধর্মতত্ত্ব
  14. প্রকৃতি-পরিবেশ
  15. প্রবাস জীবন
শিরোনাম

কুড়িগ্রামে পাটের দামে কৃষকরা খুশি নন

প্রতিবেদক
জেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম
সেপ্টেম্বর ৭, ২০২৩ ১২:১৬ অপরাহ্ণ

কুড়িগ্রামে হাট বাজারে পাট বিক্রি করতে এসে বিপাকে পড়েছেন কৃষকেরা। এবছর ফলন ভালো হয়েছে তবে দামে খুশি নন তারা।মৌসুমের শুরুতে দাম ভালো পেলেও বর্তমান বাজারের পাটের দাম অনেক কমেছে । লাভ তো দুরের কথা চাষাবাদের খরচ নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় আছেন কৃষকেরা। বর্তমানে প্রতি মণ পাট ১৮০০-২০০০ টাকা মাত্র। পাটের এমন মন্দা দামে আগামী মৌসুমে পাট চাষের আশা ছেড়ে দেবেন বলে জানান অনেক পাট চাষি।

সরেজমিনে দেখা যায়, কুড়িগ্রামের সদর উপজেলার যাত্রাপুর হাটে বসেছে পাটের বাজার। সপ্তাহে দুদিন বসে এ হাট। দুর দূরান্ত থেকে নৌকা, সাইকেল, ঘোড়ার গাড়ি করে পাট বিক্রি করতে এসেছে চাষিরা। তবে হাটে এসে পাটের দাম শুনে মন খারাপ সবারই।গত হাটের চেয়ে পাটের দাম প্রতি মণে কমেছে ৩০০-৪০০।টাকা।পরিবহন খরচ আর আবাদের খরচ মিলিয়ে তাদের লাভের অঙ্ক প্রায় শুন্যের কোটায়।

কদমতলা গ্রামের মোঃ নুর ইসলাম বলেন, এক বিঘা জমিতে পাট আবাদ করে সার,পানি, কীটনাশক, আঁশ ছড়ানো মজুরি খরচসহ ১৪-১৫ হাজার টাকা ব্যয় হয়। বিঘায় পাট পাই ৮-১০ মন।মোট খরচ হিসেবে আমাদের কোন লাভই থাকে না। কষ্ট করে পাট চাষ করে কি লাভ?

আরেক কৃষক মোঃ হাসানুর বলেন, গত দু’বছর ধরে পাটের দাম ভালো পাচ্ছি না। বৃষ্টি নাই, খড়া মৌসুমে পাট গাছের জমিতে বাড়তি পানি দিতে হয়। তাই খরচও বেশি হচ্ছে। সে তুলনায় তেমন লাভ নাই।

ভগবতীপুরের পাট ব্যবসায়ী আসলাম মিয়া বলেন, আমি গ্রাম ঘুরে ১৮০০ -১৯০০ টাকা দিয়ে পাট গুলো কিনছিলাম। আজকে সেই কেনা দামেই বিক্রি করতে হলো। পরিবহন খরচ, কুলি খরচ, হাটের খাজনা হিসেব করলে লাভ থাকছেনা। গত হাটে এই পাটের দাম ২২’শ থেকে ২৩’শ টাকা ছিল। দিন যতই যাচ্ছে পাটের দাম ততই কমছে।

আরেক ক্ষুদ্র পাট ব্যবসায়ী জাহেদুল ইসলাম বলেন, গত হাটে পাটের দাম মণপ্রতি ২২শ থেকে ২৩শ টাকা ছিলো। আজকে সেই পাটের মণ সর্বোচ্চ ২০০০টাকা। দাম না বাড়লে লোকসান পড়বো।

কুড়িগ্রাম জেলা মুখ্য পাট পরিদর্শকের কার্যালয়ের পাট পরিদর্শক এটিএম খায়রুল হক বলেন, গত দুই সপ্তাহ আগে পাটের দাম ভালো ছিল।এখন পাটের দাম কমছে।কেননা অধিকাংশ ব্যবসায়ী কারখানায় পাট সরবরাহ করে পুরো পাওনা টাকা বুঝিয়ে পায় নাই। তাই ব্যবসায়ীদের হাতে টাকা নাই। ব্যবসায়ীরাও পাট কেনায় আগ্রহ কমিয়ে দিয়েছেন।

সর্বশেষ - আইন-আদালত

আপনার জন্য নির্বাচিত

তাপমাত্রা বাড়তে পারে

কাদের-চুন্নুকে অব্যাহতি, জাপার নতুন চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ

কৃষি হবে উন্নয়ন ও উন্নত জীবনের হাতিয়ার : কৃষিমন্ত্রী

৪৩তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ, উত্তীর্ণ ৯৮৪১

সানউইনংস ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেল বি২বি পার্টনার সভা

রোহিঙ্গা ইস্যুতে দ্রুত বৈশ্বিক পদক্ষেপের আহ্বান রাষ্ট্রপতির

খেলাপি বেড়েছে ১৮ হাজার ১৮০ কোটি টাকা

সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন এক পক্ষের উপরই বর্তায় না, সকল রাজনৈতিক দলেরই দায়বদ্ধতা রয়েছে

ট্রাম্পের মন্তব্যে চিন্তায় পড়েছে ইউরোপের দেশগুলো

উন্নত বিশ্বকে শুধুমাত্র আর্থিক ক্ষতিপূরণ প্রদান করলেই হবে না, প্রযুক্তিগত জ্ঞানও প্রদান করতে হবে