timewatch
১৬ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, সন্ধ্যা ৬:৫৮ মিনিট
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি
  6. খুলনা
  7. খেলাধূলা
  8. গণমাধ্যম
  9. চট্রগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. ঢাকা
  12. তথ্য-প্রযুক্তি
  13. ধর্মতত্ত্ব
  14. প্রকৃতি-পরিবেশ
  15. প্রবাস জীবন
শিরোনাম

বড়পুকুরিয়ায় কয়লা উৎপাদন বন্ধ হচ্ছে

প্রতিবেদক
জেলা প্রতিনিধি, দিনাজপুর
আগস্ট ৩০, ২০২৩ ৬:৪৭ অপরাহ্ণ

বর্তমান ফেইসে কয়লা না থাকায় বুধবার থেকে দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে উৎপাদন কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। চালু হতে সময় লাগবে প্রায় দুই মাস।

২৯ আগস্ট ২০২৩ মঙ্গলবার কয়লা উত্তোলন কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে খনি কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সাইফুল ইসলাম সরকার। তিনি জানান, এটি নিয়মিত প্রক্রিয়া। পুরাতন ফেইসে কয়লার মজুত শেষ হয়ে যাওয়ায় সেটি বন্ধ করে নতুন ফেইস চালু করা হবে। এজন্য আপাতত উৎপাদন বন্ধ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই কয়লার উৎপাদন অনেক কমে গেছে।

বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে খনির ১১১৩নং ফেইস থেকে কয়লা উত্তোলন করা হচ্ছে। এই ফেইস থেকে ৩ লাখ ৭৫ হাজার মেট্রিক টন কয়লা উত্তোলন হয়েছে। বর্তমানে ওই ফেইসের কয়লার মজুত শেষ। ফলে ফেইসটি বন্ধ করে সেখান থেকে যন্ত্রপাতি স্থানান্তর করে নতুন ফেইস ১৪১২ চালু করা হবে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহের দিকে এই ফেইস থেকে কয়লা উত্তোলন করা সম্ভব হবে। নতুন এই ফেইসে প্রায় ২ লাখ ১০ হাজার মেট্রিক টন কয়লা উত্তোলন করা সম্ভব হবে।

সূত্রটি জানায়, প্রতিবারই কয়লাখনির যেসব ফেইস থেকে কয়লা উত্তোলন করা হয় সেসবের উত্তোলনযোগ্য মজুত শেষ হলে সেটি বন্ধ করা হয়। এরপর সেখান থেকে যন্ত্রপাতি তুলে নতুন ফেইস তৈরির কার্যক্রম শুরু করা হয়। বর্তমানে যে ফেইসটি বন্ধ করা হচ্ছে সেটি চালু করা হয়েছিল চলতি বছরের ২৫ এপ্রিল।

কয়লাখনির এমডি জানান, পুরনো ফেইস বন্ধ এবং নতুন ফেইস চালু পর্যন্ত কয়লা উত্তোলন বন্ধ রাখার বিষয়টি চিঠির মাধ্যমে বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রকে অবহিত করা হয়েছে। মজুত করা পরিমাণ কয়লা আছে তাতে বিদ্যুৎ উৎপাদনে কোনও সমস্যা হবে না।

সর্বশেষ - ধর্মতত্ত্ব