timewatch
১৬ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, ভোর ৫:৪৩ মিনিট
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি
  6. খুলনা
  7. খেলাধূলা
  8. গণমাধ্যম
  9. চট্রগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. ঢাকা
  12. তথ্য-প্রযুক্তি
  13. ধর্মতত্ত্ব
  14. প্রকৃতি-পরিবেশ
  15. প্রবাস জীবন
শিরোনাম

‘লিবারেল ইসলামিক জোট ও বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের মতবিনিময় সভা’

প্রতিবেদক
রুপম আক্তার
অক্টোবর ৪, ২০২৩ ৩:৩৩ অপরাহ্ণ

রাজধানীর বিজয় নগরে চুং ওয়া রেস্টুরেন্টে ৩ অক্টোবর ২০২৩ সোমবার বেলা ১১ টায় লিবারেল ইসলামিক জোট ও বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভায় লিবারেল ইসলামিক জোটের পক্ষে নেতৃত্ব দেন জোটের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি’র (বিএসপি) চেয়ারম্যান ড. শাহাজাদা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী। পাশাপাশি এই জোটের পক্ষে আরো উপস্থিত ছিলেন লিবারেল ইসলামিক জোটের নির্বাহী চেয়ারম্যান ও  বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান চৌধুরী, লিবারেল ইসলামিক জোটের কো-চেয়ারম্যান ও সমন্বয়ক এবং কৃষক শ্রমিক পার্টির চেয়ারম্যান ফারাহনাজ হক চৌধুরী, লিবারেল ইসলামিক জোটের কো-চেয়ারম্যান ও  আশিক্কীনে আউলিয়া ঐক্য পরিষদ বাংলাদেশের চেয়ারম্যান শাহসুফি সৈয়দ আলম নূরী সুরেশ্বরী, লিবারেল ইসলামিক জোটের কো-চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ জনদলের চেয়ারম্যান মোঃ মাহবুবুর রহমান জয় চৌধুরী, লিবারেল ইসলামিক জোটের কো-চেয়ারম্যান ও ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির চেয়ারম্যান মোঃ হাসরত খান ভাসানীসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। অপরদিকে বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের পক্ষে নেতৃত্ব দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত।

বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের পক্ষে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির অন্যতম সভাপতি নির্মল রোজারিও, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য রবুন কর্মকার, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মনীন্দ্র কুমার নাথ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত কুমার দেব, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ব্যারিষ্টার প্রসান্ত বড়ুয়া, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রমেন মন্ডলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, নির্বাচন আসলেই সাম্প্রদায়িক একটি গোষ্ঠী দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার জন্য উঠে পড়ে লাগে। ধর্মকে ব্যবহার করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার জন্য তারা সব সময় প্রস্তুত থাকে। নির্বাচনেও ধর্মকে ব্যবহারের প্রভাব বেশ লক্ষনীয় হয়ে থাকে। ধর্মকে ডাল হিসেবে ব্যবহার করে নির্বাচনী বৈতরণী পার হওয়ার চেষ্টা করে। এছাড়াও বিভিন্ন সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উপাসনালয়ে হামলা প্রতিমা ভাঙচুরসহ নানা নেক্কারজনক কাজ করে থাকে। এসব সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষ উপড়ে ফেলতে পারলে অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব বলে মনে করেন তারা।
হিন্দু-বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত বলেন, নির্বাচন আসলেই সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী মাথা চাড়া দিয়ে ওঠে। সুযোগ পেলেই তারা ভিন্ন ধর্মের মানুষের উপর হামলে পড়ে। বিগত বছরের হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিমা ভাঙচুর হামলার বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এনিমি প্রপার্টিকে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যাবর্তন আইনের মাধ্যমে জমির প্রকৃত মালিকের কাছে হস্তান্তর চালু হলেও সেখানে বছর পর বছর সময় লেগে যাচ্ছে। সাম্প্রদায়িকতারেউর্ধ্বে উঠে মানবতার কল্যাণে ভাতৃত্ববন্ধনে আবদ্ধ হলেই বাঙ্গালি জাতি সাম্প্রদায়িকতার রাহুর কবল থেকে মুক্ত পাবে। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের ৬ দফা দাবিকে সমর্থন করার জন্য লিবারেল ইসলামিক জোটের নেতাদের কাছে আহবান জানান তিনি।
লিবারেল ইসলামিক জোটের চেয়ারম্যান শাহজাদা ড. সৈয়দ সাইফুদ্দীন মাইজভাণ্ডারী বলেন, বাঙালি জাতীয়তাবাদকে উপজীবী করে আমরা আজকে একত্র হয়েছি। সাম্প্রদায়িকতা কোনো জাতির জন্যই মঙ্গলজনক নয়। ইসলামে কোনো জবরদস্তি বা বাড়াবাড়ি নেই। আগামী দুর্গাপূজায় আমাদের নেতাকর্মীরা হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রত্যেকটি পূজা মন্ডপ পাহারা দিবে এবং তাদের ধর্মীয় কাজ সম্পাদনের জন্য সর্বাত্মক সহায়তা করবে। উভয়ের জোটের পক্ষ থেকে একটি লিয়াজ ও কমিটি করে ঢাকায় কন্ট্রোল রুম স্থাপনের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ইসলাম একটি শান্তির ধর্ম এখানে কোনো জবরদস্তি, মারামারি, হানাহানি, হিংসা-বিদ্বেষকে সমর্থনের সুযোগ নেই। বাংলাদেশে লিবারেল ইসলামিক জোট সর্বদাই সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষ উপড়ে ফেলতে কাজ করে যাচ্ছে বলে তিনি মত প্রকাশ করেন।
আয়োজিত মতবিনিময় সভায় উপস্থিত নেতৃবৃন্দ দেশের ধর্মীয় অধিকার, রাজনীতি, মানবাধিকার, সাম্প্রদায়িকতা, জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসসহ সাম্প্রতিক ইস্যুতে বক্তব্য দেন। এসময় মানুষের ধর্মীয় অধিকার, রাজনীতি, মানবাধিকার, সাম্প্রদায়িকতা, জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসসহ সাম্প্রতিক ইস্যু বিষয়ে নেতৃবৃন্দ একটি লিয়াজো কমিটি গঠন করে। এই লিয়াজো কমিটির সদস্যরা হলেন মনীন্দ্র কুমার নাথ, জয়ন্ত কুমার দেব, মুফতি মাওলানা মনিরুজ্জামান রব্বানী, খালেদ শাহরিয়ার, সেলিম আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আবদুল আজিজ সরকার ও রমেন মণ্ডল।

সর্বশেষ - ঢাকা

আপনার জন্য নির্বাচিত